ঢাকা, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩রা জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

আ.লীগের আপত্তিতে বেলকুচিতে মামুনুল হকের ওয়াজ মাহফিল বাতিল

২৪ ঘন্টা খবর বিডি

স্টাফ রিপোর্টার


প্রকাশিত: ৭:৫৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩, ২০২০
শেয়ার করুনঃ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

আল্লামা মামুনুল হক

সিরাজগঞ্জ: আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রবল আপত্তির মুখে সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হকের ওয়াজ মাহফিল বাতিল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) বিকেলে মাহফিলটি বাতিলের বিষয় নিশ্চিত করেছেন বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম মোস্তফা।

তিনি বলেন, আগামী ১৭ ডিসেম্বর বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের জামতৈল দারুল উলুম কওমিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসায় ওয়াজ মাহফিল হওয়ার কথা ছিল। তবে এ বিষয়ে আমাদের অবগত করা হয়নি।

পোস্টার দেখে বিষয়টি জানতে পেরে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ওয়াজ মাহফিলটি বাতিল করতে বলা হয়েছে।
এদিকে, আয়োজক মাদ্রাসার শিক্ষা-সচিব মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, ওই ওয়াজ মাহফিলের আলোচক করা হয়েছিল আল্লামা মামুনুল হককে।

ওয়াজ মাহফিলটি বাতিল হয়ে গেছে। তিনি সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে আসছেন না।

বেলকুচি উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল আহমেদ বলেন, আমরা সকালে মাদ্রাসা কমিটির সঙ্গে বসেছিলাম। মামুনুল হকের বিরুদ্ধে আমাদের তীব্র আপত্তির কথা তাদের জানিয়েছি। মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আমাদের সামনেই মামুনুল হককে কল দিয়ে মাহফিলে আসতে নিষেধ করেছেন।

এর আগে এ মাদ্রাসায় ১৭ ডিসেম্বরের ওয়াজ মাহফিলের প্রচারের জন্য পোস্টার ছাপানো হয়। ওই পোস্টারে আল্লামা মামুনুল হককে বক্তা হিসেবে উল্লেখ করা হয়। এতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে। তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে মামুনুল হককে আসতে দেওয়া হবে না লিখে একের পর এক ফেসবুক পোস্ট চলতে থাকে। শনিবার মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ। এ অবস্থায় ওই ওয়াজ মাহফিল বাতিল করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

সিরাজগঞ্জ জেলা যুবলীগ সভাপতি রাশেদ ইউসুফ জুয়েল বলেন, আমরা আয়োজক কমিটির সঙ্গে কথা বলেছি। যে ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ফেলে দিতে চান, তাকে সিরাজগঞ্জে মাহফিল করতে দেওয়া হবে না বলে আয়োজকদের জানিয়েছি। তারা পরিস্থিতি বুঝে তাদের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছেন।