ঢাকা, ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৬ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

চালকদের ঘুম তাড়াতে চা–বিস্কুট নিয়ে রাস্তায় পুলিশ

২৪ ঘন্টা খবর বিডি

স্টাফ রিপোর্টার


প্রকাশিত: ৮:২৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০
শেয়ার করুনঃ

এবার চট্টগ্রামে রাত্রিকালীন যানচালকদের ঘুম তাড়াতে অন্য রকম এক কর্মযজ্ঞ শুরু করেছেন পুলিশ সদস্যরা। ঘুম ঘুম চোখে গাড়ি চালানো বন্ধে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই ও চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের বিভিন্ন স্থানে নৈশকোচ ও ট্রাকচালকদের জন্য চা-বিস্কুটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। রয়েছে হাত–মুখ ধোয়ার ব্যবস্থাও। পাশাপাশি গল্পে গল্পে দেওয়া হচ্ছে সচেতনতামূলক পরামর্শ।

জানা যায়, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেনের উদ্যোগে ‘রিফ্রেশমেন্ট কর্নার’ নামে ব্যতিক্রমী এই সেবা চালু হয়েছে। এক মাস ধরে রাউজান ও রাঙ্গুনিয়ায় চলছে এই সেবা।

গতকাল শুক্রবার রাতে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে গিয়ে দেখা যায়, রাউজানের পাহাড়তলীর চৌমুহনী বাজার এলাকায় সড়কের পাশে পুলিশের সার্কেল কার্যালয়ের উদ্যোগে তৈরি করা হয়েছে বিশেষ অস্থায়ী বিশ্রামাগার। পুলিশ সদস্যরা বেছে বেছে দূরপাল্লার নৈশকোচ ও ট্রাকগুলোকে দাঁড় করাচ্ছেন। এরপর বুঝিয়ে গাড়ি থেকে নামানো হচ্ছে চালক ও তাঁদের সহকারীদের।

বেশির ভাগ চালকই প্রথমে এটাকে পুলিশের চাঁদাবাজির নয়া কৌশল ভেবে বিভিন্ন অজুহাতে নামতে চাচ্ছিলেন না। কিন্তু পরে যখন দেখছেন কেটলি হাতে চা-কফি নিয়ে এগিয়ে আসছেন পুলিশ সদস্যরা, তখনই ভুল ভাঙে তাঁদের।

এ ব্যাপারে সহকারী পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, শীতের রাতে গাড়ি চালাতে চালাতে অনেক চালকেরই ঘুমে চোখ বন্ধ হয়ে আসে। অসাবধানতায় প্রায়ই ঘটে যায় ছোট-বড় দুর্ঘটনা। এ কারণে চালকদের সচেতন করতেই মূলত মুখ ধোয়ার জন্য গরম পানি এবং চা-বিস্কুটের ব্যবস্থা।

তিনি বলেন, ‘আমাদের পক্ষে তো সব চালকের মুখোমুখি হওয়া বা সবার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব নয়। তাই যাঁদের পাচ্ছি, তাঁদেরই অনুরোধ করছি, তারা যেন সব সহকর্মীর কাছে আমাদের বার্তাটি পৌঁছে দেন।’